কুমিল্লার হোমনা উপজেলার বড় ইউনিয়ন পরিষদ সমূহ

হোমনা, কুমিল্লা জেলার লীলাভূমির মধ্যে অবস্থিত একটি প্রাণবন্ত উপজেলা, প্রাকৃতিক সৌন্দর্য ও সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের সমৃদ্ধ ট্যাপেস্ট্রি ধারণ করে। এর প্রশাসনিক কাঠামো দশটি ইউনিয়ন পরিষদ নিয়ে গঠিত, প্রতিটি উপজেলার সার্বিক উন্নয়ন এবং অগ্রগতিতে অবদান রাখে। এই বিস্তৃত প্রতিবেদনটি প্রতিটি ইউনিয়ন পরিষদের জটিলতাগুলিকে ব্যাখ্যা করে, তাদের অনন্য বৈশিষ্ট্য, চ্যালেঞ্জ ও অর্জনগুলিকে তুলে ধরে।

union-parishad-homna-upazila-in-comilla-district

হোমনা উপজেলার বড় ইউনিয়ন পরিষদ সমূহ

  • হোমনা সদর ইউনিয়ন পরিষদ,
  • বৈক্করপুর ইউনিয়ন পরিষদ,
  • বারাসত ইউনিয়ন পরিষদ,
  • বুড়িচং ইউনিয়ন পরিষদ।

হোমনা সদর ইউনিয়ন পরিষদ

হোমনা সদর ইউনিয়ন পরিষদ হোমনা উপজেলার প্রশাসনিক সদর দপ্তর হিসেবে কাজ করে। এটি কৌশলগতভাবে উপজেলার কেন্দ্রস্থলে অবস্থিত, দক্ষ শাসন ও প্রয়োজনীয় পরিষেবাগুলিতে অ্যাক্সেসযোগ্যতা নিশ্চিত করে।

আনুমানিক ২৫,০০০ জনসংখ্যা নিয়ে হোমনা সদর ইউনিয়ন পরিষদ উপজেলার সবচেয়ে জনবহুল ইউনিয়ন। এর বৈচিত্র্যময় জনসংখ্যা বিভিন্ন আর্থ-সামাজিক পটভূমির ব্যক্তিদের নিয়ে গঠিত, যা এলাকার প্রাণবন্ত সামাজিক কাঠামোতে অবদান রাখে।

হোমনা সদর ইউনিয়ন পরিষদের প্রধান অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড কৃষি। কৃষকরা এই অঞ্চলের উর্বর জমিগুলিকে কাজে লাগিয়ে ধান, গম, পাট ও শাকসবজি সহ বিভিন্ন ধরণের ফসল চাষ করে। উপরন্তু, মুদির দোকান, সেলাইয়ের দোকান ও খাবারের দোকানের মতো ছোট-বড় ব্যবসা স্থানীয় অর্থনীতিতে অবদান রাখে।

ইউনিয়ন পরিষদ একটি প্রশংসনীয় শিক্ষাগত অবকাঠামো নিয়ে গর্ব করে, যা বেশ কয়েকটি প্রাথমিক এবং মাধ্যমিক বিদ্যালয়কে অন্তর্ভুক্ত করে। এই প্রতিষ্ঠানগুলো শিক্ষার্থীদের মানসম্মত শিক্ষা প্রদান করে, সাক্ষরতা বৃদ্ধি করে ও উচ্চ শিক্ষা এবং দক্ষতা উন্নয়নের সুযোগ সৃষ্টি করে।

একটি ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও বেশ কয়েকটি কমিউনিটি ক্লিনিকের উপস্থিতির মাধ্যমে স্বাস্থ্যসেবা পরিষেবাগুলিতে অ্যাক্সেস নিশ্চিত করা হয়। এই সুবিধাগুলি জনসংখ্যার মৌলিক স্বাস্থ্যসেবা চাহিদা পূরণ করে, প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সেবা ও প্রতিরোধমূলক পরিষেবা প্রদান করে।

হোমনা সদর ইউনিয়ন পরিষদ রাস্তা এবং সেতুর নেটওয়ার্কের মাধ্যমে উপজেলা এবং জেলার বাকি অংশের সাথে সু-সংযুক্ত। এই পরিবহন সংযোগগুলি মানুষ ও পণ্য চলাচলের সুবিধা দেয়, অর্থনৈতিক কার্যকলাপ ও সামাজিক মিথস্ক্রিয়া সক্ষম করে।

বৈক্করপুর ইউনিয়ন পরিষদ

হোমনা উপজেলার পূর্বাংশে বাইক্করপুর ইউনিয়ন পরিষদ অবস্থিত। এর পশ্চিমে হোমনা সদর ইউনিয়ন পরিষদ ও পূর্বে বরুড়া উপজেলা।

বাইক্করপুর ইউনিয়ন পরিষদের জনসংখ্যা আনুমানিক ২০,০০০, এটি উপজেলার দ্বিতীয় জনবহুল ইউনিয়নে পরিণত হয়েছে। জনসংখ্যা প্রধানত কৃষক ও কৃষি শ্রমিক নিয়ে গঠিত।

বৈক্করপুর ইউনিয়ন পরিষদের অর্থনৈতিক দৃশ্যপটে কৃষির প্রাধান্য রয়েছে। এলাকার উর্বর মাটি ও প্রচুর পানির সম্পদকে কাজে লাগিয়ে কৃষকরা ধান, গম, পাটসহ বিভিন্ন ফসল চাষ করে। উপরন্তু, গবাদি পশু পালন, বিশেষ করে হাঁস-মুরগি ও দুগ্ধ খামার, স্থানীয় অর্থনীতিতে অবদান রাখে।

ইউনিয়ন পরিষদ শিক্ষার উপর অনেক জোর দেয় ও বেশ কয়েকটি প্রাথমিক এবং মাধ্যমিক বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠা করেছে। এই প্রতিষ্ঠানগুলি শিক্ষার্থীদের মানসম্পন্ন শিক্ষা প্রদান করে, তাদের ব্যক্তিগত এবং পেশাগত বৃদ্ধির জন্য প্রয়োজনীয় জ্ঞান এবং দক্ষতা দিয়ে ক্ষমতায়ন করে।

একটি ইউনিয়ন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও বিভিন্ন কমিউনিটি ক্লিনিকের মাধ্যমে স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করা হয়। এই সুবিধাগুলি প্রাথমিক চিকিৎসা যত্ন, প্রতিরোধমূলক পরিষেবা ও প্রয়োজনে উচ্চ-স্তরের স্বাস্থ্যসেবা সুবিধাগুলিতে রেফারেল প্রদান করে।

বাইক্করপুর ইউনিয়ন পরিষদ রাস্তা এবং সেতুর নেটওয়ার্কের মাধ্যমে বাকি উপজেলা এবং জেলার সাথে সংযুক্ত। এই পরিবহন সংযোগগুলি মানুষ ও পণ্য চলাচলের সুবিধা দেয়, অর্থনৈতিক কার্যকলাপ ও সামাজিক মিথস্ক্রিয়া সক্ষম করে।

বারাসত ইউনিয়ন পরিষদ

বারাসত ইউনিয়ন পরিষদ হোমনা উপজেলার উত্তরাংশে অবস্থিত, উত্তরে ফরিদগঞ্জ উপজেলা ও পশ্চিমে বুড়িচং উপজেলার সীমান্তবর্তী।

বারাসত ইউনিয়ন পরিষদের জনসংখ্যা আনুমানিক ১৮,০০০, জনসংখ্যার অধিকাংশই কৃষিকাজে নিয়োজিত।

বারাসত ইউনিয়ন পরিষদের স্থানীয় অর্থনীতির মেরুদণ্ড কৃষি। উর্বর জমি ও পর্যাপ্ত সেচ সুবিধা ব্যবহার করে কৃষকরা ধান, গম ও পাট সহ বিভিন্ন ধরনের ফসল চাষ করে। উপরন্তু, গবাদি পশু পালন, বিশেষ করে গবাদি পশু ও ছাগল পালন, স্থানীয় অর্থনীতিতে অবদান রাখে।

বুড়িচং ইউনিয়ন পরিষদ

বুড়িচং ইউনিয়ন পরিষদ হোমনা উপজেলার পশ্চিমাংশে অবস্থিত, পশ্চিমে মুরাদনগর উপজেলার সীমান্তবর্তী  এলাকা অবস্থিত।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Oops!
সম্ভবত আপনার ইন্টারনেট সংযোগে ত্রুটি হয়েছে!!